চুল পড়া বন্ধ করার উপায়

প্রিয় পাঠক, আপনারা সকলেই জানেন যে বর্তমানে চুল পড়া আমাদের প্রত্যেকের মধ্যেই একটি অনেক বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু আমরা অনেকেই চুল পড়া বন্ধ করার উপায় সম্পর্কে জানি না। চুল পড়া বন্ধ করার উপায় সম্পর্কে জানতে হলে এই আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়তে হবে।
চুল পড়া বন্ধ করার উপায়
আমরা চেষ্টা করব এই আর্টিকেল এর মাধ্যমে আপনাদের সাথে বিভিন্ন ধরনের গুরুত্বপূর্ণ কিছু উপায় শেয়ার করতে। তাই আর্টিকেলটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত আমাদের সাথে থাকবেন। এতে করে আপনারা বিভিন্নভাবে উপকৃত হতে পারবেন।

পোস্টের সূচিপত্রঃ চুল পড়া বন্ধ করার উপায়

ভূমিকা

বর্তমান সময়ে ছেলে এবং মেয়ে উভয়ের মধ্যে একটি অনেক বড় সমস্যা দেখার দিচ্ছে। আর সেই সমস্যাটি হলো চুল পড়া। এই চুল পড়া নিয়ে আমরা খুবই চিন্তিত অবস্থায় থাকি। কসমেটিকসের দোকান থেকে কেনা বিভিন্ন ধরনের শ্যাম্পু ব্যবহার করার মাধ্যমে কোন প্রকার কাজ হয় না। এই চুল পড়ার কারণে অনেকের মাথায় টাক পড়ে যাচ্ছে। কিন্তু আমরা কি জানি চুল পড়া কিভাবে বন্ধ করা যায় বা চুল পড়া বন্ধ করার উপায় গুলো।

যদি আপনাদের সে বিষয়ে জানা না থাকে তাহলে আজকে আমরা চেষ্টা করব আপনাদের চুল পড়া এবং এই চুল পড়া বন্ধ করার উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা দেওয়ার। তাহলে আসুন জেনে নিন চুল কেন পড়ে এবং এটি কিভাবে বন্ধ করা যায়।

কি কি কারণে চুল পড়ে

চুল পড়া বন্ধ করার উপায় সম্পর্কে জানার আগে আমাদের সর্বপ্রথম জানা উচিত যে কি কি কারণে চুল পড়ে যায়। এ বিষয়ে যদি জানা থাকে তাহলে আমরা খুব সহজেই চুল পড়া বন্ধ করতে পারি। বেশিরভাগ সময় পুরুষদের ক্ষেত্রে দেখা যায় যে অধিক পরিমাণে চুল পড়ে যাওয়ার কারণে ছেলেদের মাথায় টাক পড়ে যায় এবং নতুন চুল গজাতেও অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। তবে চুল বিভিন্ন কারণে পড়ে যেতে পারে। চুল পড়ার কিছু কারণ নিচে তুলে ধরা হলো।
  • চুল পড়ার প্রথম কারণ হচ্ছে আমরা আমাদের চুলে বিভিন্ন ধরনের কসমেটিক্স পণ্য ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু আমরা কি কখনো পরীক্ষা করে দেখেছি যে আমরা যেই পণ্যগুলো আমাদের মাথায় বা চুলে ব্যবহার করে থাকি এটি কি আসলেই ভালো আমাদের চুলের জন্য। আমরা যদি আমাদের চুলের অবস্থা বিবেচনা না করে বিভিন্ন ধরনের শ্যাম্পু কন্ডিশনার বা অন্যান্য হারবাল প্রোডাক্টস ব্যবহার করে থাকি তাহলে আমাদের চুলের ড্যামেজ হয়ে চুল পড়ে যেতে পারে।
  • চুল পড়ার আরেকটি কারণ হচ্ছে আমরা অনেকেই এখন আমাদের চুলে অতিরিক্ত পরিমাণে হিট দিয়ে থাকি এবং বিভিন্ন ধরনের কেমিক্যাল জাতীয় জিনিস ব্যবহার করে থাকি। কিছুদিন পর পর বিভিন্ন জাতীয় কেমিক্যাল পদার্থ চুলে ব্যবহার করার মাধ্যমে চুল পড়ে যেতে পারে। আবার আমরা চলে যাই হিট দেই এই হিটের পরিমাণ অতিরিক্ত বেশি হওয়ার কারণে ও আমাদের চুল পড়ে যেতে পারে। আবার অনেকের মধ্যেই দেখা যায় যে হেয়ার ড্রায়ার দিয়ে চুল শুকানো। কিন্তু সব সময় এগুলো ব্যবহারের মাধ্যমে এগুলো আমাদের চুলকে ড্যামেজ করে দিতে পারে।
  • আবার চুল পড়ার আরেকটি কারণ হচ্ছে এখন অনেক মহিলাদের ক্ষেত্রে দেখা যায় যে তারা অত্যান্ত টাইট করে তাদের চুল বেঁধে রাখে। এ টাইট করে চুল বেঁধে রাখার ফলে তাদের চুলের গোড়া গুলো আলগা হয়ে গিয়ে চুল পড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।
  • আমাদের অনেকের মধ্যেই একটি অভ্যাস দেখা যায় যে চুল ভেজা অবস্থায় চুল আঁচড়ানো। ভেজা অবস্থায় চুল আঁচড়ানোর মাধ্যমে আমাদের চুল পড়ে যেতে পারে।
  • আবার মাঝে মধ্যে আমাদের খাবারে পুষ্টিকর জাতীয় খাবারের অভাবেও চুল পড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থেকে যায়।
  • বর্তমান সময়ে অনেকের মধ্যেই একটি সমস্যা দেখা যায় যে মাথায় খুশকি। এই খুশকি হওয়ার কারণে অনেক ক্ষেত্রেই চুল পড়ে যায়।

চুল পড়া বন্ধ করার প্রাকৃতিক উপায়

আমরা বিভিন্ন ধরনের প্রাকৃতিক উপায় অবলম্বন করে আমাদের চুল পড়া রোধ করতে পারি। এখনকার সময় বিভিন্ন ধরনের প্রাকৃতিক উপায় রয়েছে যেগুলো আমাদের চুল পড়া অনেকাংশেই কমিয়ে দেয়। এখন আমরা সেই প্রাকৃতিক উপায় গুলো সম্পর্কে জানব।
  • চুলের মধ্যে মেখি ব্যবহার করার মাধ্যমে চুল পড়া বন্ধ করা যেতে পারে। এর জন্য একটি কাপের আধা কাপ পরিমাণ নারিকেল তেল নিয়ে তাতে এক চাম চ মেথি মিশিয়ে পানিতে ফুটে নিতে হবে এবং এটি ঠান্ডা হওয়ার পরে চুলের গোড়ায় মেসেজ করতে হবে এবং এই মেসেজ করার পরে এটি কিছুক্ষণ রেখে দিয়ে ভালোভাবে শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলতে হবে। এভাবে করলে চুল পড়া রোধ করা যেতে পারে।
  • চুল পড়া বন্ধ করার আরো একটি ভালো উপায় হচ্ছে অ্যালোভেরার জেল ব্যবহার করা। এলোভেরার পাতাগুলোর মধ্যে যে জেল পাওয়া যায় সেই জেলগুলো চুলের আগা থেকে গোড়া পর্যন্ত ভালোভাবে লাগিয়ে দিয়ে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করার পরে সেগুলো শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেললে চুল পড়া বন্ধ করা যায়। এই এলোভেরা জেলের আরো একটি ভালো গুনাগুন হচ্ছে এটি আমাদের চুলকে ঝলমলে করে।
  • এছাড়াও মেহেদী এবং সরিষার তেল ব্যবহার করার মাধ্যমে চুল পড়া অনেকাংশেই বন্ধ করা যায়। এর জন্য একটি পাত্রের মধ্যে ২৫০ মিলি পরিমাণ সরিষার তেল নিয়ে এরমধ্যে কমপক্ষে বৃষ্টির মেহেদির পাতা দিয়ে ভালোভাবে ফুটিয়ে নিতে হবে এবং ঠান্ডা হওয়ার পরে এটি ভালোভাবে মাথার মধ্যে মেসেজ করতে হবে। এবং এটি ২০ মিনিটের মত রেখে দেওয়ার পরে ধুয়ে ফেলতে হবে। এভাবে চুল পড়া বন্ধ করা যেতে পারে।
  • আমরা প্রাকৃতিকভাবে পেঁয়াজের রস ব্যবহার করে চুল পড়া বন্ধ করতে পারি। এর জন্য আমাদের পেঁয়াজের রস বের করে সেই রসগুলো সরাসরি চুলের গোড়ায় লাগিয়ে মেসেজ করে নিতে হবে।
  • মাঝেমধ্যে আমাদের খাবারে প্রোটিনের অভাবের কারণে চুল পড়ে যেতে পারে। তাই প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার খাওয়ার মাধ্যমে চুল পড়া রোধ করা যায়।
  • এছাড়া চুল পড়া বন্ধ করার জন্য শ্যাম্পু করার পরে মাথায় কন্ডিশনার ব্যবহার করার চেষ্টা করবেন। কারণ শ্যাম্পু করার পরে আমাদের চুলগুলো হয়ে ওঠে শুষ্ক। এবং এটি দূর করার জন্য কন্ডিশনার ব্যবহার করলে চুল মসৃণ হয়ে ওঠে।

চুল পড়া বন্ধ করার ভিটামিন

বর্তমানে চুল পড়া বন্ধ করার জন্য একটি ভিটামিন ক্যাপসুল পাওয়া যায়। আর সেই ক্যাপসুলটির নাম হল ভিটামিন ই ক্যাপসুল। এটি চুল পড়া রোধে খুবই ভালো কাজ করে থাকে। আমাদের যে কোন জিনিস ব্যবহারের পূর্বে সেটির গুনাগুন এবং কার্যক্রম সম্পর্কে জেনে নেওয়া উচিত যাতে করে আমরা বুঝতে পারি যে এটি আমাদের জন্য ব্যবহার করা আসলে কি উচিত নাকি উচিত না। ভিটামিন ই ক্যাপসুল আমাদের চুলের জন্য অত্যন্ত ভালো একটি উপাদান। এটির মধ্যে ব্যবহার করা যে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে তা আমাদের মাথার স্কাল্পে দারুন কাজ করে। 

এটি আমাদের চুলের গ্রোথ বাড়াতে খুবই দ্রুত কাজ করে এবং চুল পড়া বন্ধ করতে সাহায্য করে। এই ই ক্যাপসুল ব্যবহার উপায় হচ্ছে আমরা আমাদের মাথায় যে নরমাল তেলগুলো ব্যবহার করে থাকি সেটির সাথে একটি ই ক্যাপসুল মিশিয়ে চুলের মধ্যে ভালোভাবে মেসেজ করে নিতে হবে এবং এটি মেসেজ করার দুই তিন ঘন্টা পর কুসুম গরম পানি দিয়ে ভালোভাবে ধুয়ে ফেলতে হবে। আমরা চেষ্টা করব সপ্তাহে দুইদিন এভাবে ব্যবহার করা। তাহলে আমাদের চুল পড়া বন্ধ হয়ে যাবে।

চুল পড়া বন্ধ করার তেলের নাম

বর্তমান সময়ে চুল পড়া বন্ধ করার জন্য বিভিন্ন ধরনের তেল তৈরি হয়েছে। এবং এই তেল গুলো চুল পড়া বন্ধ করতে খুবই ভাল কাজ করে। আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক চুল পড়া বন্ধ করার কয়েকটি তেল সম্পর্কে। চুল পড়া বন্ধ করার জন্য যে তেল গুলো রয়েছে তার মধ্যে কয়েকটির নাম নিচে দেওয়া হল।
  • Biotique Bio Bhringraj Fresh Growth Therapeutic Oil
  • Dabur Almond Hair Oil
  • Sunflower Olive Oil
  • Indulekha Bhringa Hair Oil
  • Khadi Natural Rosemary and Henna Hair oil
  • Parachute Advanced Gold Coconut Hair Oil
  • Parachute Advanced Jasmine Coconut Hair Oil
  • Indus Valley Bio Organic Hair Oil

শেষ কথা

উপরে চুল পড়ার বিভিন্ন ধরনের কারণ এবং চুল পড়া বন্ধ করার উপায় সম্পর্কে বিভিন্নভাবে আলোচনা করা হয়েছে। আপনারা যদি চুল পড়া বন্ধ করার যে উপায় গুলো সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে সেই অনুযায়ী কাজ করেন তাহলে আশা করি আপনাদের চুল পড়া অনেক ক্ষেত্রেই কমে যাবে। এতক্ষণ আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url