বিনা পুঁজিতে লাভজনক ব্যবসা আইডিয়া

এমন অনেক মানুষ আছেন যারা বিনা পুঁজিতে লাভজনক ব্যবসা আইডি য়া খুঁজে থাকেন অথবা বিনা পুঁজিতে বিভিন্ন ধরনের লাভজনক ব্যবসা আইডিয়া সম্পর্কে জানতে চান। বিশেষ করে তাদের জন্যই আজকের আমাদের এই আর্টিকেলটি লেখা। আজকে আমরা আমাদের আর্টিকেল এর মধ্যে যে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করব সেটি হল বিনা পুঁজিতে লাভজনক ব্যবসা আইডিয়া।
বিনা পুঁজিতে লাভজনক ব্যবসা আইডিয়া
আজকের আর্টিকেলটি সম্পূর্ণরূপে পড়ার মাধ্যমে আপনি একেবারে বিনা পুঁজিতে লাভজনক ব্যবসা আইডিয়া সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন। কোন ব্যবসাগুলো করতে আপনাকে কোন প্রকার টাকা খরচ করতে হবে না এবং আপনি সম্পূর্ণ বিনা টাকাই করতে পারবেন সেসব বিষয় সম্পর্কে আমাদের আর্টিকেলে আলোচনা করা হবে। তাহলে আর দেরি না করে চলুন শুরু করা যাক।

পোস্টের সূচিপত্রঃ বিনা পুঁজিতে লাভজনক ব্যবসা আইডিয়া

ভূমিকা

বর্তমানে মানুষ একটি বিষয় খুব বেশি পরিমাণে খুজে থাকে সেটি হল বিনা পুঁজিতে লাভজনক ব্যবসা। এবং তারা এই ধরনের ব্যবসা গুলো খুঁজতে গিয়ে বিভিন্ন ধরনের চিন্তার মধ্যে পড়ে যায় যে তারা কোন ব্যবসা দিয়ে শুরু করবে বা বিনা পুঁজিতে কোন ব্যবসাটি ভালো হবে। তাই এখন আর চিন্তার কোন কারণ নেই। আপনি এই আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ পড়ে বুঝতে পারবেন যে বিনা পুঁজিতে কোন লাভজনক ব্যবসাটি ভালো হবে। বা আপনার জন্য বিনা পুঁজিতে কোন ব্যবসাটি করা ভালো হবে। 
তবে বিনা পুঁজিতে ব্যবসা করতে হলে আপনাকে কখনোই অলসতা করা যাবে না কারণ আপনি যদি অলসতা করেন তাহলে কখনোই ব্যবসাতে সফল হতে পারবেন না। আরেকটি বিষয় মাথায় রাখতে হবে যে সব সময় ব্যবসাতে সময় দিতে হবে এবং আপনার গ্রাহকদের সাথে সবসময় ভাল ব্যবহার করতে হবে। যাতে করে আপনার ব্যবসা খুবই দ্রুত বৃদ্ধি পেতে থাকে এবং আপনি সফলতা পেতে পারেন।

ড্রপ শিপিং এর ব্যবসা

আপনি যদি বিনা পুঁজিতে কোন একটি ব্যবসা করতে চান তাহলে ড্রপ শিপিং এর ব্যবসা হচ্ছে সবচেয়ে ভালো একটি ব্যবসা। এই ড্রপ শিপিং এর ব্যবসা করার জন্য কোন প্রকার পুঁজির প্রয়োজন হয় না। আপনি কোন প্রকার ইনভেস্ট ছাড়াই সম্পূর্ণ ফ্রিতে এই ড্রপ শিপিং এর ব্যবসা করতে পারবেন। ড্রপ শিপিং এর ব্যবসাটি হচ্ছে মূলত আপনি কোন একটি কোম্পানির পণ্য আপনি আপনার নিজের গ্রাহকদের কাছে দেখাবেন এবং গ্রাহকরা যখন সেই পণ্যটি পছন্দ করে আপনার কাছে অর্ডার করবে তখন আপনি সেই অর্ডারটি কোম্পানির কাছে পৌঁছে দিবেন। 

এরপর কোম্পানি সেই অর্ডারটি অনুযায়ী সেই গ্রাহকের কাছে পণ্য পৌঁছে দিবে। এটি হচ্ছে মূলত ড্রপ শিপিং এর ব্যবসা। এখন আপনার মনে একটি প্রশ্ন আসতে পারে যে কোম্পানি যদি গ্রাহকের কাছে পণ্য পৌঁছে দেয় তাহলে সেখানে আপনার লাভ কি। ড্রপ শিপিং এর ব্যবসা করার মাধ্যমে আপনার লাভটি হচ্ছে কোম্পানি আপনাকে যে দামে কোন পণ্য দিবে আপনি সে পণ্যটি আপনার গ্রাহকের কাছে বেশি দামে বিক্রি করতে পারবেন। 

যেমন ধরুন যে আপনি একটি প্যান্ট কোম্পানির কাছ থেকে ক্রয় করলেন ৭০০ টাকা দিয়ে এবং সেটি আপনার গ্রাহকের কাছে বিক্রি করলেন ৮০০ টাকা দিয়ে তাহলে গ্রাহক পণ্যটি পাওয়ার পরে কিংবা পাওয়ার আগে আপনাকে ৮০০ টাকা পেমেন্ট করলে আপনি সেখান থেকে ৭০০ টাকা কোম্পানিকে দিয়ে দিবেন। তাহলে অবশিষ্ট থাকলো আরো ১০০ টাকা। এই ১০০ টাকায় হচ্ছে আপনার লাভ। 

এছাড়াও আপনি যদি অন্য আরও বেশি দামে বিক্রি করতে পারেন তাহলে কোম্পানির দামের উপরের যে অবশিষ্ট অংশটি থাকবে সেটি হচ্ছে আপনার লাভ। তাহলে আপনি নিশ্চয়ই এখন বুঝতে পারছেন যে ড্রপ শিপিং ব্যবসাটি আপনি খুব সহজেই বিনা পুঁজিতে ঘরে বসে করতে পারবেন।

ব্লগ বিজনেস এর ব্যবসা

যারা ঘরে বসেই বিনা পুঁজিতে একটি লাভজনক ব্যবসা করতে চান তাদের জন্য এই ব্লগ বিজনেস ব্যবসা হচ্ছে খুবই ভালো একটি ব্যবসা। কারণ এই ব্যবসাটি করতে আপনাকে কোন প্রকার ইনভেস্ট করতে হবে না। ব্লগ ব্যবসাটি হচ্ছে এমন এক ধরনের ব্যবসা যেটিতে আপনি বিভিন্ন ধরনের ব্লগ বা আর্টিকেলের মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের পণ্য বা সার্ভিস বিক্রি করা। 

তবে একটি বিষয় মাথায় রাখতে হবে যে আপনি যদি ব্লগ বিজনেস করতে চান তাহলে আপনাকে ভালো মানের একটি কন্টেন্ট তৈরি করতে হবে যাতে করে আপনার সেই কনটেন্ট পড়ে গ্রাহকরা আপনার পণ্য বা সার্ভিস নেওয়ার জন্য আগ্রহী হয়ে ওঠে। এছাড়াও ভালো কনটেন্ট লেখার ফলে আরেকটি লাভ হচ্ছে আপনি যদি ভালো কনটেন্ট লিখতে পারেন বা তৈরি করতে পারেন তাহলে সার্চ ইঞ্জিন আপনার কনটেন্টটিকে রেংকিং এ উপরের দিকে নিয়ে যাবে। 

এবং এই রেংকিং এ উপরের দিকে নিয়ে যাওয়ার ফলে আপনার কনটেন্টটি প্রচুর মানুষের সামনে চলে আসবে এবং আপনি প্রচুর ভিজিটর পাবেন। এবং এর ফলে আপনার পণ্য যখন অনেক মানুষের সামনে চলে যাবে তখন অনেক মানুষ সে পণ্যগুলো ক্রয় করবে। তাই আপনি যদি বিনা পুঁজিতে একটি লাভজনক ব্যবসা খুঁজে থাকেন তাহলে এই ব্লগ বিজনেসের ব্যবসা হচ্ছে আপনার জন্য ভালো একটি ব্যবসা।

ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয়

বর্তমানে ইউটিউব চ্যানেলকে মানুষ তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে পরিণত করে ফেলেছে। বর্তমানে প্রচুর পরিমাণে মানুষ ইউটিউব থেকে প্রচুর পরিমাণে টাকা ইনকাম করে থাকে। তবে ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করার জন্য আপনাকে কোন প্রকার ইনভেস্ট করতে হবে না বা আপনার কোন প্রকার পুঁজির প্রয়োজন হবে না। আপনি সম্পূর্ণ ফ্রিতেই এখানে কাজ করতে পারবেন বা ব্যবসা করতে পারবেন। 
বর্তমানে ইউটিউবে ব্যবসা করাটা অনেকটাই সহজ হয়ে গিয়েছে। আপনি যদি একটি ইউটিউব চ্যানেল খুলতে পারেন এবং সেখানে প্রচুর পরিমাণে সাবস্ক্রাইবার আনতে পারেন তাহলে আপনি খুব সহজেই প্রতি মাসে প্রচুর টাকা এই ইউটিউব চ্যানেল থেকে ইনকাম করতে পারবেন। এবং এই ইনকামের জন্য আপনার কোন প্রকার পুঁজির প্রয়োজন হবে না। 

তবে আপনি যদি ইউটিউব চ্যানেল থেকে ইনকাম করতে চান বা ইউটিউবে ব্যবসা করতে চান তাহলে আপনাকে ভালো মানের এবং উন্নত মানের ভিডিও তৈরি করতে হবে। যাতে করে গ্রাহকরা আপনার সেই ভিডিওটি দেখেই আপনার পণ্য বা সার্ভিস নেওয়ার জন্য আপনার সাথে কন্টাক্ট করে। তবে আপনার ভিডিও কোয়ালিটি এবং আপনার ভিডিওর মান যদি ভাল না হয় তাহলে আপনি কখনোই আপনার এই ব্যবসাতে সফল হতে পারবেন না। 

এছাড়াও আপনার চ্যানেলে প্রচুর সাবস্ক্রাইবার বানাতে হবে। তাছাড়া আপনার চ্যানেলে যদি সাবস্ক্রাইবার বেশি না থাকে তাহলে আপনার অন্য বা সার্ভিস গুলো অন্যান্য মানুষের কাছে কখনো যাবে না। তাই বলা যায় যে বিনা পুঁজিতে লাভজনক ব্যবসা আইডিয়া গুলোর মধ্যে এই ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করা এটি একটি লাভজনক ব্যবসা।

ডাটা এন্ট্রি সার্ভিস থেকে আয়

বর্তমানে প্রচুর পরিমাণে মানুষ এই ডাটা এন্ট্রি করে প্রতি মাসে প্রায় লাখ টাকার বেশি ইনকাম করছে। ডাটা এন্ট্রি কথাটি শুনে আপনার মনে হয়তোবা একটি প্রশ্ন আসতে পারে যে এই ডাটা এন্ট্রি করতে হয়তো বা কিছু হলেও পুঁজির প্রয়োজন আছে। কিন্তু আপনার এই ধারণাটি সম্পূর্ণ ভুল। ডাটা এন্ট্রির কাজ করার জন্য আপনার কোন ধরনের পুঁজির প্রয়োজন নেই। বিভিন্ন ধরনের কোম্পানি রয়েছে যারা নির্দিষ্ট একটি বেতন দিয়ে তাদের কোম্পানিতে বিভিন্ন ধরনের ডাটাবেজ তৈরি করার জন্য কর্মী নিয়োগ। 
আপনি যদি বিনা পুঁজিতে একটু লাভজনক ব্যবসা খুঁজতে থাকেন তাহলে এই ডাটা এন্ট্রি কাজ করা আপনার জন্য একটি লাভজনক ব্যবসা। কারণ আপনি কোন ধরনের পুঁজি ছাড়াই এবং সম্পূর্ণ ঘরে বসেই এই ডাটা এন্ট্রির কাজগুলো করতে পারবেন। তবে প্রথম দিকে আপনাকে আপনার ক্লায়েন্ট ধরার জন্য নিজে নিজেই প্রচুর পরিমাণে কাজ করতে হবে এবং সব সময় এ ডাটা এন্টি সার্ভিসে সময় দিতে হবে। 

কিন্তু যখন পরবর্তীতে আপনি দেখবেন যে আপনার ক্লায়েন্টের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে তখন আপনি চাইলে কিছু ফ্রিল্যান্সার দিয়ে আপনি সেই ক্লায়েন্টের কাজগুলো করিয়ে নিতে পারবেন এবং সে কাজগুলো যথাসময়ে আপনার ক্লায়েন্টদের কাছে ডেলিভারি দিতে পারবেন। এতে করে আপনাকে তেমন কাজ করতে হবে না এবং আপনি সেখান থেকে কমিশন ও পাবেন। তাহলে আপনি এখন বুঝতে পারছেন যে বিনা পুঁজিতে লাভজনক ব্যবসা গুলোর মধ্যে এই ডাটা এন্ট্রির সার্ভিস দেওয়া কতটা লাভজনক।

ডিজিটাল মার্কেটিং করা

বর্তমানে প্রচুর ফ্রিল্যান্সাররা ডিজিটাল মার্কেটিং করে প্রতি মাসে প্রায় লাখ লাখ টাকা ইনকাম করছে। ডিজিটাল মার্কেটিং এর কাজ করার জন্য আপনার কোন প্রকার পুঁজির প্রয়োজন হবে না এবং অনেক বড় একটি লাভজনক ব্যবসা। ডিজিটাল মার্কেটিং হচ্ছে এমন এক ধরনের ব্যবসা এটি মূলত কোন একটি কোম্পানি হয়ে আপনি যখন তাদের বিভিন্ন ধরনের পণ্য বা সার্ভিস অনলাইনে মার্কেটিং করে দিতে পারবেন তখন সেটিকে বলা হয় ডিজিটাল মার্কেটিং। 
আবার ডিজিটাল মার্কেটিং করার আরেকটি সুবিধা হল এই ডিজিটাল মার্কেটিং করার জন্য আপনাকে কোন প্রকার ভারী কম্পিউটার বা ল্যাপটপ এর প্রয়োজন হবে না আপনার যদি ল্যাপটপ বা কম্পিউটার নাও থাকে তারপরও আপনি এই ডিজিটাল মার্কেটিং এর কাজ মোবাইল দিয়েও করতে পারবেন। তবে এই ডিজিটাল মার্কেটিং করার জন্য আপনার কিছু অভিজ্ঞতার প্রয়োজন হবে। 

তবে এটি নিয়েও কোন চিন্তা নেই বর্তমানে ইউটিউবে প্রচুর পরিমাণ টিউটোরিয়াল ভিডিও রয়েছে ডিজিটাল মার্কেটিং এর উপরে যেগুলো দেখার মাধ্যমে এবং ভালোভাবে বোঝার মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই ঘরে বসে ডিজিটাল মার্কেটিং এর কাজ করতে পারবেন। 

আবার অনেক সময় এমনটি হয়ে থাকে যে আপনি যদি ভাল দক্ষতা অর্জন করতে পারেন এবং ভালোভাবে কাজ শিখতে পারেন তাহলে দেশের কাজের পাশাপাশি আপনি বাইরের দেশেরও কাজ পাওয়ার সুযোগ রয়েছে। তাই ফ্রিল্যান্সিং জগতে যতগুলো লাভজনক ব্যবসা রয়েছে তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে এই ডিজিটাল মার্কেটিং করা।

সোশ্যাল মিডিয়ার সার্ভিস ব্যবসা করা

সোশ্যাল মিডিয়া সার্ভিস ব্যবসা বর্তমানে একটি অত্যন্ত লাভজনক ব্যবসা। সোশ্যাল মিডিয়া সার্ভিস ব্যবসা মূলত এমন এক ধরনের ব্যবসা যেটির মাধ্যমে আপনি ফেসবুকে লাইক, ফলোয়ার, কমেন্ট ইত্যাদির বিক্রি করতে পারবেন এছাড়াও ইনস্টাগ্রামে ফলোয়ার বিক্রি করতে পারবেন, ইউটিউবে সাবস্ক্রাইবার বিক্রি করতে পারবেন এবং ওয়াচ টাইম পূরণ করে দিতে পারবেন এবং ভিউস বিক্রি করতে পারবেন। 

বর্তমানে প্রচুর পরিমাণে মানুষ এর সোশ্যাল মিডিয়া সার্ভিস ব্যবসা করে থাকেন। আর এ ব্যবসাটি করতে আপনার কোন প্রকার পুঁজির বা ইনভেস্ট এর প্রয়োজন হবে না। এখন আপনার মনে হয় তবে একটা প্রশ্ন আসতে পারে যে আপনার এ ধরনের সার্ভিস গুলো আপনি মানুষের সামনে কিভাবে নিয়ে যাবেন বা মানুষ কিভাবে আপনাদের সাথে কন্টাক্ট করবে বা আপনাদের কাজের ব্যাপারে জানতে পারবে। আপনি ফেসবুকে বা ইনস্টাগ্রামে বা ইউটিউবে মার্কেটিং করার মাধ্যমে আপনার এই ধরনের ব্যবসা বা কাজগুলোকে অন্যান্য মানুষের সামনে প্রদর্শন করতে পারবেন।

তাদের কাছে যদি আপনার কাজগুলো ভালো লেগে থাকে তাহলে তারা আপনাদের কাছে সে কাজের জন্য অর্ডার দেবে এবং আপনি সেই অর্ডারগুলো কমপ্লিট করে তাদেরকে দিয়ে দিবেন। এভাবে আপনি ব্যবসা করে প্রচুর টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তাহলে আপনি এখন বুঝতে পারছেন যে বিনা পুঁজিতে লাভজনক ব্যবসা গুলোর মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ার সার্ভিস ব্যবসা করাটাও কতটা লাভজনক একটি ব্যবসা।

শেষ কথা

ব্যবসা হচ্ছে মূলত এক ধরনের মুক্ত পেশা এবং আপনি সেখানে আপনি নিজ স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারবেন। আপনার কাজের কোন টাইম টেবিল নির্ধারণ করা থাকবে না। শুধুমাত্র ক্লায়েন্ট এর কাজগুলো সময়মতো দিতে পারলে হয়ে গেলো। এসব কারণে অনেক মানুষ এখন চাকরি পরিবর্তে বিভিন্ন ধরনের ব্যবসা করে। আপনি যদি সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি ভালোভাবে পড়ে থাকেন তাহলে আপনার আর বুঝতে বাকি নেই যে বিনা পুঁজিতে লাভজনক ব্যবসা গুলোর মধ্যে কোন ব্যবসাগুলো ভালো। 

আপনি যদি বিনা পুঁজিতে কোন একটি লাভজনক ব্যবসা করতে চান তাহলে উপরের যে ব্যবসা গুলোর কথা বলা হয়েছে তার মধ্যে যেকোনো একটি করতে পারেন এবং প্রতি মাসে প্রচুর পরিমাণে টাকা ইনকাম করতে পারেন। আজকের আর্টিকেলে যদি আপনার কাছে ভালো লেগে থাকে তাহলে সেটা আপনার বন্ধুদের কাছে শেয়ার করবেন যাতে তারাও বিনা পুঁজিতে বিভিন্ন ধরনের লাভজনক ব্যবসা করতে পারে। 

এছাড়াও আপনার যদি আরো কিছু ব্যবসা জানার জন্য আগ্রহ থাকে তাহলে সেটা আমাদেরকে কমেন্ট এর মাধ্যমে জানাবেন আমরা সেই বিষয়েও আর্টিকেল লেখার চেষ্টা করব বা আপনার উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব। ভালো থাকবেন এবং সুস্থ থাকবেন ধন্যবাদ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url