গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহারের নিয়ম

যতই দিন যাচ্ছে ততই গ্যাসের ব্যবহার বেড়েই চলেছে। বাসা বাড়িতে যেন এখন আর গ্যাস ছাড়া রান্নাই হয় না। যে এলাকাগুলোতে এখনো গ্যাসের সংযোগ দেওয়া হয়নি সেই এলাকাগুলোর একমাত্র ভরসা হচ্ছে গ্যাসের সিলিন্ডার। কিন্তু আপনি যদি ঠিকমতো এই গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহার করতে না পারেন বা এই গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহারের নিয়ম সম্পর্কে না জানেন তাহলে ধরতে পারে অনেক বড় ধরনের একটি দুর্ঘটনা। 
গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহারের নিয়ম
আর এই গ্যাস সিলিন্ডারের মাধ্যমে ঘটা দুর্ঘটনা গুলো অত্যন্ত মারাত্মক হয়ে থাকে। তাই আপনারা যাতে এসব দুর্ঘটনা থেকে দূরে থাকতে পারেন এজন্য আজকে আমরা আপনাকে গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহারের নিয়ম সম্পর্কে জানাবো। আপনি যদি আজকের এই আর্টিকেলটি সম্পূর্ণভাবে পড়েন তাহলে আশা করা যায় যে আজকের পর থেকে গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহার করতে আপনাকে আর কোন ধরনের সমস্যার মধ্যে পড়তে হবে না।

পোস্টের সূচিপত্রঃ গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহারের নিয়ম

গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহারের নিয়ম

এখন যেসব এলাকায় গ্যাস সংযোগ পৌঁছায়নি সেসব এলাকায় গ্যাস সিলিন্ডারের ব্যবহার করা হয়ে থাকে। তবে অনেকেই জানেন না যে কিভাবে সঠিকভাবে গ্যাস সিলিন্ডারের ব্যবহার করতে হয়। আর এই গ্যাস সিলিন্ডারের ব্যবহার না জানার কারণে অনেক বড় এবং মারাত্মক ধরনের দুর্ঘটনা ঘটে যায়। তাই এ সকল দুর্ঘটনা এড়াতে এবং নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে এবং নিজের পরিবারকে সুরক্ষিত রাখার জন্য আপনাকে জানতে হবে গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহারের নিয়ম সম্পর্কে। চলুন তাহলে এখন জেনে নেওয়া যাক যে কিভাবে সঠিক উপায়ে গ্যাস সিলিন্ডারের ব্যবহার করতে হয়।
  • আপনার বাসায় যদি গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহার করা হয়ে থাকে তাহলে এই গ্যাস সিলিন্ডার টি সব সময় একটি সমতল জায়গায় সোজাভাবে রাখার চেষ্টা করবেন।
  • আপনি যদি রান্নার কাজে গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহার করে থাকেন তাহলে রান্নাঘর সব সময় খোলামেলা অবস্থায় রাখবেন এছাড়াও রান্নাঘর সব সময় পরিষ্কার রাখার চেষ্টা করবেন এবং রান্নাঘরের দরজা জানালা গুলো খুলে রাখবেন যাতে করে রান্না ঘরে থাকা গ্যাস খুব সহজেই বাইরে বের হয়ে যেতে পারে।
  • আপনি রান্নার মধ্যে কোন প্রকার দাহ্য পদার্থ ব্যবহার করবেন না।
  • আপনি যে স্থানে গ্যাস সিলিন্ডার রাখবেন সেখানে কোন ধরনের প্লাস্টিক জাতীয় জিনিস বা কাগজ বা কেরোসিন জাতীয় জিনিস অথবা অন্য কোন ভর্তি গ্যাস সিলিন্ডারও সেই গ্যাস সিলিন্ডারের পাশে রাখবেন না। কারণ এইসব জিনিস যদি আপনি আপনার রান্না করার গ্যাস সিলিন্ডারের পাশে রাখেন তাহলে অনেক বড় দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা থাকে।
  • আপনি যেই গ্যাস সিলিন্ডার এর মাধ্যমে রান্না করবেন সেই গ্যাস সিলিন্ডারটি সব সময় ছায়াযুক্ত স্থানে স্থানে রাখার চেষ্টা করুন কোন সময় এটি কোন কিছুর তাপের সংস্পর্শে নিয়ে আসবেন না।
  • গ্যাসের চুলায় ব্যবহৃত পাইপ সময় মত পরিবর্তন করা উচিত। গ্যাসের পাইপে কোন ধরনের সমস্যা দেখা গেলে সেটি অবশ্যই পরিবর্তন করে ফেলতে হবে।
  • রেগুলেটর বা পাইপ কেনার সময় অবশ্যই বিআইএস এর অনুমোদিত রেগুলেটর বা পাইপ কিনতে হবে।
  • আপনি যখন আপনার গ্যাস সিলিন্ডারটি পরিবর্তন করবেন তখন অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে যাতে করে গ্যাসের চুলা কোন ভাবে চালু না থাকে।
  • গ্যাস সিলিন্ডার কেনার সময় খেয়াল রাখতে হবে যে সিলিন্ডারের মধ্যে রাবারের রিং সঠিকভাবে লাগানো আছে কিনা, প্রয়োজন হলে সাবান পানি ব্যবহার করে সিলিন্ডার চেক করে নিতে হবে যে সিলিন্ডারে কোন প্রকারের লিক আছে কিনা।

গ্যাস সিলিন্ডার কেন বিস্ফোরিত হয়

গ্যাস সিলিন্ডার বিভিন্ন কারণে বিস্ফোরিত হয়ে থাকে। যতদিন যাচ্ছে ততই গ্যাস সিলিন্ডারে দুর্ঘটনার সংখ্যা বেড়েই চলেছে।। আপনি যদি ঠিকঠাক মতো গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহার করতে না পারেন তাহলে এই গ্যাস সিলিন্ডারের মাধ্যমে ঘটতে পারে মারাত্মক ধরনের দুর্ঘটনা। তবে আপনাকে আগে জানতে হবে যে গ্যাস সিলিন্ডার কেন বিস্ফোরিত হয়। আপনি যদি আপনার ব্যবহৃত গ্যাস সিলিন্ডারটি উঁচু-নিচু জায়গায় রাখেন তাহলে অনেক সময় এটি পড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। 
আর এই গ্যাস সিলিন্ডার পরে যাওয়ার মাধ্যমে ঘটতে পারে একটি বড় ধরনের দুর্ঘটনা। তাই কখনোই গ্যাস সিলিন্ডার ফেলে দেবেন না বা বেশি টানাটানি করবেন না। গ্যাস সিলিন্ডারে রান্না করার সময় অনেকেই একটি ভুল করে থাকেন আর সেটি হল রান্নাঘরের দরজা জানালা খুলে দেন না। কিন্তু আপনি কি জানেন যদি আপনি রান্নাঘরের দরজা জানলা না খুলে রাখেন তাহলে অনেক সময় ঘটতে পারে একটি মারাত্মক ধরনের দুর্ঘটনা। তাই রান্নাঘরের দরজা-জানলা সব সময় খোলা রাখতে হবে যেন ভেতরের গ্যাস গুলো বাইরে চলে যেতে পারে এবং বাতাস চলাচল করতে পারে। 

অনেক সময় গ্যাসের চুলার পাইপে লিক থাকার কারণেও গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হয়ে থাকে। আপনি যদি মনে করেন যে আপনার গ্যাসের চুলায় ব্যবহৃত পাইপটি আপনি জোড়া তালি দিয়ে ব্যবহার করবেন তাহলে এটি সম্পূর্ণ একটি ভুল ধারণা। আপনি যদি আপনার লিক হওয়া পাইপটি জোড়া তালি দিয়ে ব্যবহার করেন তাহলে এটার কারণে অনেক সময় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হতে পারে।

আপনি যখন আপনার গ্যাস সিলিন্ডার টি পরিবর্তন করবেন এবং বাজার থেকে নতুন গ্যাস সিলিন্ডার নিয়ে এসে সেটির মাথায় রেগুলেটর লাগাবেন তখন সে রেগুলেটর লাগানোর সময় ভালোভাবে চেক করে নিতে হবে যে রেগুলেটরিটি ঠিকভাবে লাগানো আছে কিনা। এবং এটাও চেক করে নিতে হবে যে রেগুলেটরের আশপাশ দিয়ে কোন প্রকার গ্যাস বের হচ্ছে কিনা। কারণ রেগুলেটরের আশেপাশে দিয়ে যদি কোন প্রকার গ্যাস বের হয় তাহলে অনেক বড় একটি দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

গ্যাস সিলিন্ডার লিক হলে করণীয়

আপনি যদি কখনো লক্ষ্য করেন যে আপনার গ্যাস সিলিন্ডারে লিক হয়েছে তাহলে সাথে সাথে আপনাকে বেশ কিছু কাজ করতে হবে। কিংবা আপনি যদি রান্নাঘরের প্রবেশ করার সময় গ্যাসের গন্ধ পেয়ে বুঝতে পারেন যে গ্যাস সিলিন্ডারের লিক হয়েছে তাহলে আপনাকে বেশ কিছু নিয়ম মানতে হবে। চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক যে গ্যাস সিলিন্ডার লিক হলে করণীয় কি।
  • আপনি যদি কখনো লক্ষ্য করেন বা বুঝতে পারেন যে আপনার ব্যবহৃত গ্যাস সিলিন্ডার টি লিক হয়েছে তাহলে কখনোই আগুন জ্বালাবেন না। এমনকি গ্যাস সিলিন্ডারের আশেপাশে ধূমপান করা বা কয়েল রাখা থাকলে সেটি সাথে সাথে নিভিয়ে ফেলুন। তা না হলে একটি বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।
  • গ্যাস সিলিন্ডারে লিক হওয়ার কারণে যদি কোন কারণবশত সেখানে আগুন লেগে যায় তাহলে সেটি বিদ্যুতের মাধ্যমে সম্পূর্ণ বাড়িতে ছড়িয়ে পড়বে। তাই যদি কখনো বুঝতে পারেন যে আপনার গ্যাস সিলিন্ডারে লিংক হয়েছে তাহলে সাথে সাথে বাড়ির মেইন সুইচ অফ করে দিন।
  • আপনি যদি কখনো গ্যাস সিলিন্ডারে লিক হওয়া বুঝতে পারেন বা গ্যাসের গন্ধ বুঝতে পারেন তাহলে সাথে সাথে বাড়ির সবগুলো দরজা এবং জানালা খুলে দিন যাতে করে বাসার ভেতরে গ্যাস গুলো বাহিরে বেরিয়ে যেতে পারে।
  • কখনো যদি বুঝতে পারেন যে রেগুলেটরের গোড়া দিয়ে গ্যাস বের হচ্ছে তাহলে সাথে সাথে রেগুলেটরটি বন্ধ করে দিন এবং সিলিন্ডারে সেফটি ক্যাপ লাগিয়ে দিন। কারণ এই সেফটি ক্যাপ লাগানোর ফলে অনেক সময় গ্যাস সিলিন্ডারের বিস্ফোরণের দুর্ঘটনা থেকে বাঁচা যায়।
  • আপনি যদি গ্যাস সিলিন্ডারের আশেপাশে যাওয়ার সময় বুঝতে পারেন যে গ্যাস সিলিন্ডারে লিক হয়েছে তাহলে সেটি কাপড়ে পেঁচিয়ে ফাঁকা জায়গায় নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করুন। একা যদি সম্ভব না হয় তাহলে দুইজন মিলে ধরে সেটিকে ফাঁকা জায়গায় নিয়ে যান।
  • কখনো যদি আপনার ব্যবহৃত গ্যাস সিলিন্ডারটি লিক হয়ে যায় তাহলে যারা গ্যাস সিলিন্ডার মেরামত করে তাদের কাছে খবর পাঠিয়ে দিন। এতে করে তারা খুবই দ্রুত এসে আপনার গ্যাস সিলিন্ডার টি মেরামত করে দেবে এবং আপনাকে একটি বড় দুর্ঘটনার হাত থেকে বাঁচিয়ে দিবে।

গ্যাস সিলিন্ডার লিক টেস্ট কিভাবে করতে হয়

এখন আপনার মাথায় একটি প্রশ্ন আসতে পারে যে আপনি কি হবে গ্যাস সিলিন্ডারের লিক টেস্ট করবেন বা বুঝতে পারবেন যে আপনার গ্যাস সিলিন্ডারে লিক হয়েছে। আপনার গ্যাস সিলিন্ডার টি যদি কখনো লিক হয়ে যায় তাহলে সেটি বোঝার একমাত্র উপায় হল গ্যাসের গন্ধ পাওয়ার মাধ্যমে আপনি খুব সহজে বুঝতে পারবেন যে আপনার গ্যাস সিলিন্ডারে লিক হয়েছে। কারণ যখন একটি গ্যাস সিলিন্ডার লিক হয়ে যায় তখন তার আশেপাশে প্রচুর পরিমাণে গ্যাসের গন্ধ ছড়িয়ে পড়ে। আর এই গ্যাসের গন্ধ পাওয়ার মাধ্যমে খুব সহজেই বোঝা যায় যে গ্যাস সিলিন্ডারে লিক হয়েছে। এবং আপনি তৎক্ষণাৎ গ্যাস সিলিন্ডারের লিট বন্ধ করার জন্য একটি ব্যবস্থা নিতে পারবেন।

গ্যাস লাইন লিকেজ

গ্যাস লাইন লিকেজ হলে অনেক বড় ধরনের একটি দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। গ্যাস লাইনে যখন লিকেজ হয় তখন পুরো এলাকা জুড়ে গ্যাসের গন্ধ ছড়িয়ে পড়ে। তাই কখনো যদি বোঝা যায় যে গ্যাসের লাইনে লিকেজ হয়েছে তাহলে মাইকিং করার মাধ্যমে বা মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়ে বলতে হবে যে কেউ যাতে গ্যাসের চুলা না জ্বালায়। কারণ এই সময় গ্যাসের চুলা জ্বালানোর ফলে ঘটতে পারে অনেক বড় ধরনের একটি দুর্ঘটনা।

শেষ কথা

আশা করা যায় যে গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহারের নিয়ম সম্পর্কে সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ার মাধ্যমে আপনি খুবই ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন যে কিভাবে গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহার করতে হয়। আপনি যদি সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি ভালোভাবে পড়ে থাকেন তাহলে আজকের পর থেকে গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহার করতে আপনাকে আর কোন ধরনের সমস্যার মধ্যে পড়তে হবে না। আশা করি আজকের এই আর্টিকেলটি আপনার কাছে ভালো লেগেছে। 

এই আর্টিকেলটা যদি আপনার কাছে ভালো লেগে থাকে তাহলে আপনার বন্ধুদেরকে পড়ার সুযোগ করে দিন এবং তাদেরকেও গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহার সম্পর্কে সতর্ক করে দিন। সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ার জন্য এবং এতক্ষণ আমাদের সাথে থাকার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url