দাঁত সাদা করার উপায় কি

বর্তমানে অধিকাংশ মানুষই দাঁত বের করে হেসে ছবি তুলতে পছন্দ হয়। কিন্তু অনেক সময় দাঁতের রং হলদে ভাব হয়ে যাওয়ার কারণে তারা মানুষের সামনে যেতে পারে না। এছাড়াও তারা যখন ছবি তুলে তখন তারা সব সময় নিজেদের হলদে রঙের দাঁতগুলো গোপন রাখার চেষ্টা করে। 
দাঁত সাদা করার উপায় কি
তাই আপনারা যাতে এ ধরনের সমস্যা না ভোগেন এবং আর যাতে এ ধরনের সমস্যার মধ্যে না পড়তে হয় এজন্য আমরা আজকে দাঁত সাদা করার উপায় কি এই বিষয়ে একটি আর্টিকেল লিখছি। আশা করা যায় যে আপনি যদি সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি একদম মনোযোগ সহকারে পড়েন তাহলে আপনিও পারবেন আপনার হলদে রঙের দাঁতগুলোকে একদম ঝকঝকে সাদা করে ফেলতে। তাহলে চলুন এখনই জেনে নেওয়া যাক যে দাঁত সাদা করার উপায় কি।

পোস্টের সূচিপত্রঃ দাঁত সাদা করার উপায় কি

ভূমিকা

বর্তমানে প্রত্যেকটি মানুষের দাঁতেই একটি সমস্যা দেখা যায় আর সেটি হল যে দাঁতের রং হলদে ভাব হয়ে যাওয়া। এই হলদে রঙের দাঁত নিয়ে মানুষ অন্যদের সামনে যেতে লজ্জা পায়। সুন্দর হাসির জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ একটি জিনিস হচ্ছে সুন্দর এবং ঝকঝকে সাদা দাঁত। তাই আমরা আমাদের দাঁতগুলোকে সুন্দর এবং ঝকঝকে রাখার জন্য কত কিছুই না করে থাকি। 

কিন্তু সঠিক উপায় গুলো না জানার কারণে এবং সেগুলো মেনে না চলার কারণে আমরা ঠিকমত আমাদের দাঁতগুলোকে সাদা করতে পারিনা। কিন্তু আর কোন চিন্তা নেই কারণ আজকের এই আর্টিকেলটি ভালোভাবে পড়লে আপনি বুঝতে পারবেন যে কিভাবে দাঁত সাদা করা যায়। তাহলে আর কথা না বাড়িয়ে চলুন জেনে নেওয়া যাক।

দাঁত হলুদ হয়ে যায় কেন

যারা সব সময় প্রচন্ড পরিমাণে ধূমপান করে এবং চা বা কফি পান করে এছাড়াও সবসময় তামাম জাতীয় জিনিস চিবিয়ে খায় তাদের দাঁত হলুদ হয়ে যায়। কারণ তামাক জাতীয় জিনিসগুলোর মধ্যে যে নিকোটিন গুলো থাকে সেগুলো খুবই তাড়াতাড়ি দাঁতকে হলুদ করে ফেলে। এছাড়াও সব সময় টক জাতীয় খাবার এবং এসিডিক জাতীয় খাবার খাওয়ার ফলে দাঁতের এনামেল ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে পড়ে এবং দাঁত হলদে ভাব হয়ে যায়। অনেক সময় এমনটি হয়ে থাকে যে আপনি দাঁতের যত্ন নিতে চাচ্ছেন কিন্তু আপনার দাঁতে দাগ পড়ে যাচ্ছে। 
অনেক সময় দাঁতের বিভিন্ন ধরনের সমস্যার কারণে ডাক্তাররা অনেক রকমের মাউথ ওয়াশ ব্যবহার করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। কিন্তু অনেক সময় এই মাউতাশাগুলো ব্যবহার করতে গিয়ে দেখা যায় যে দাঁতের মধ্যে বাদামি রঙের দাগ পড়ে যাচ্ছে। এছাড়াও আরো বিভিন্ন ধরনের ঔষধ থেকেও দাঁতের মধ্যে হলদে দাগ পড়তে দেখা যায়। আপনি যদি নিয়মিত ভালোভাবে ব্রাশ না করেন তাহলে এই কারণেও অনেক সময় দাঁতের রং হলুদ হয়ে যায়।

দাঁত সাদা করার উপায়

দাঁত সাদা করার জন্য বিভিন্ন ধরনের ঘরোয়া উপায় রয়েছে। আপনি যদি সে উপায়গুলো মেনে চলেন তাহলে খুঁজে আপনি আপনার দাঁতের হলদে ভাব দূর করে ফেলে দাঁত কে করে তুলতে পারবেন সাদা এবং ঝকঝকে। তাহলে আর দেরি না করে চলুন এখনই জেনে নেওয়া যাক দাঁত সাদা করার উপায় কি।
  • আপনি যদি আপনার হলদে রঙের দাঁতগুলোকে সাদা এবং ঝকঝকে করতে চান তাহলে সব সময় চেষ্টা করবেন খাওয়ার পরে এবং কোন কিছু পান করার পরে অবশ্যই দাঁত ব্রাশ করা। তার কারণ হলো আপনি যখন কোন কিছু খান বা কোন পানীয় জাতীয় জিনিস পান করেন তখন আপনার দাঁতের মধ্যে স্টোইন পড়ে যায়। আর এ থেকে দাঁতে হলদে ভাব দেখা যায়। তাই সবসময় চেষ্টা করবেন কোন কিছু খাওয়ার পরে অবশ্যই দাঁত ব্রাশ করা।
  • আপনার যদি ধূমপান করার বদ অভ্যাস থেকে থাকে তাহলে অবশ্যই সেটি পরিহার করুন। কারণ যারা নিয়মিত ধূমপান করে তাদের দাঁতের মধ্যে হলদে রঙের দাগ দেখা যায়। কারণ অতিরিক্ত স্মোকিং করার ফলে সিগারেটে থাকা রাসায়নিক পদার্থগুলো দাঁতের মধ্যে দাগ ফেলে দেয় আর এ কারণে দাঁতের রং হলুদ হয়ে যায়। তাই স্মোকিং করা থেকে সব সময় দূরে থাকতে হবে।
  • ব্ল্যাক কফি পান করা থেকে দূরে থাকুন। কারণ যারা নিয়মিত ব্ল্যাক কপি পান করেন তাদের দাঁতের মধ্যে কালো রঙের দাগ দেখা যায়। আর এই কালো রঙের দাগগুলোকে দূর করার জন্যই ব্ল্যাক কফি খাওয়া থেকে দূরে থাকতে হবে।
  • বেকিং সোডার ব্যবহার দাঁতের হলুদ রং দূর করার একটি অন্যতম উপাদান। আপনি যদি আপনার হলুদ রঙের দাঁতগুলোকে সাদা এবং ঝকঝকে করে তুলতে চান তাহলে আপনি প্রতিনিয়ত যেই টুথব্রাশ দিয়ে দাঁত মাজেন সেটিতে সামান্য পরিমাণ ব্রেকিং সোডা নিয়ে এবং সামান্য পরিমাণ পানি দিয়ে ভিজিয়ে নিয়ে কিছুক্ষণ ধরে দাঁত ব্রাশ করতে থাকুন। এভাবে নিয়মিত বেকিং সোডা ব্যবহার করার ফলে ধীরে ধীরে আপনার হলুদ রঙের দাঁতগুলো সাদা এবং ঝকঝকে হয়ে যাবে।
  • আপনি চাইলে নারিকেল তেলের ব্যবহার করার মাধ্যমেও খুব সহজেই আপনার হলুদ রঙের দাত গুলোকে সাদা করে ফেলতে পারবেন। এমন অনেক মানুষ রয়েছেন যারা দাঁতকে সাদা করার পাশাপাশি উজ্জ্বল করার জন্য এই নারিকেল তেল ব্যবহার করে থাকেন। আপনি যদি নারিকেল তেলের মাধ্যমে আপনার দাঁতগুলোকে সাদা করতে চান তাহলে একটি সুতি কাপড়ের সামান্য কয়েক ফোঁটা নারিকেল তেল নিয়ে সেটি আপনার দাঁতের উপরে ঘষতে থাকুন এবং পরে সেটি পরিষ্কার করে ফেলুন।
  • দাঁতকে সাদা এবং ঝকঝকে করার জন্য অ্যাপেল সিডার ভিনিগার অন্যতম ভালো একটি উপাদান। আপনি এই অ্যাপেল সিডার ভিনেগার ব্যবহার করে খুব সহজেই আপনার দাঁত পড়া দাঁতগুলোকে পরিষ্কার এবং ঝকঝকে করে ফেলতে পারবেন। আপনি যদি অ্যাপেল সিডার ভিনেগার দিয়ে আপনার দাঁত সাদা করতে চান তাহলে একটি টুথব্রাশের মধ্যে সামান্য কয়েক ফোঁটা পরিমাণ অ্যাপেল সিডার ভিনেগার নিয়ে ব্রাশ করতে থাকুন। আপনি যদি নিয়মিত এভাবে ব্যবহার করতে পারেন তাহলে খুব সহজেই আপনার দাঁতগুলোকে সাদা এবং ঝকঝকে করে ফেলতে পারবেন।

কোন ফল খেলে দাঁত সাদা হয়

বিভিন্ন ধরনের ফল রয়েছে যেগুলো আপনি নিয়মিত খাওয়ার মাধ্যমে আপনি আপনার দাঁতগুলোকে সাদা করে রাখতে পারবেন। তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক কোন ফল খেলে দাঁত সাদা হয়।
  • আপনি যদি নিয়মিত আপেল খান তাহলে আপনার দাঁতগুলো ঝকঝকে সাদা এবং পরিষ্কার থাকবে। কারণ বিশেষজ্ঞরা পরীক্ষা করে দেখেছেন যে নিয়মিত আপেল খাওয়ার মাধ্যমে দাঁত পরিষ্কার থাকে।
  • আপেলের মত গাজরও দাঁতকে সাদা এবং পরিষ্কার রাখার জন্য খুবই ভালো কাজ করে থাকে। কারণ গাজরে রয়েছে ফাইবার জাতীয় উপাদান।
  • আপনি যদি নিয়মিত স্ট্রবেরি খেতে পারেন তাহলে আপনার দাঁত সাদা এবং ঝকঝকে থাকবে। কারণ স্ট্রবেরিতে রয়েছে উচ্চমাত্রার ম্যালিক এসিড। আর এই ম্যালিক এসিড দাঁত কে পরিষ্কার এবং সুন্দর রাখতে সহযোগিতা করে।

দাঁত পাথর পরিষ্কার করার উপায়

দাঁতের পাথর পরিষ্কার করার জন্য যে যে উপাদান গুলো লাগবে সেগুলো হলো বেকিং সোডা, ডেন্টাল পিক, লবণ, হাইড্রোজেন পেরোক্সাইড, পানি, টুথব্রাশ, কাপ, অ্যান্টিসেপটিক মাউথ ওয়াশ। তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক যে এইসব উপাদান দিয়ে আপনি কিভাবে দাঁতের পাথর পরিষ্কার করতে পারবেন।
  • প্রথমে আপনাকে যে কাজটি করতে হবে সেটি হল একটি কাপে এক টেবিল চামচ পরিমাণ বেকিং সোডা নিয়ে সেটিতে হাফ চা চামচ পরিমাণ লবণ মেশাতে হবে। এরপরে আপনার টুথব্রাশটি গরম পানির মধ্যে ভিজিয়ে নিয়ে সেই বেকিং সোডা এবং লবণের মিশ্রণটি ভাল দিয়ে ভালোভাবে দাঁত ব্রাশ করতে হবে এবং দাঁত ব্রাশ করা হয়ে গেলে কুলকুচি করে নিতে হবে।
  • আপনি দ্বিতীয় ধাপে যে কাজটি করবেন সেটি হল একটি কাপে হাইড্রোজেন পারঅক্সাইড এর সঙ্গে হাফ কাপ পরিমাণ গরম পানি মিশিয়ে নিবেন। এরপর সেটি মুখের মধ্যে নিয়ে এক মিনিট পর্যন্ত রেখে দিন এবং পরবর্তীতে সেটি হাফ কাপ পানি দিয়ে কুলকুচি করে ফেলুন।
  • দাঁতের পাথর দূর করার জন্য তৃতীয় ধাপ হচ্ছে ডেন্টাল পিক দিয়ে আপনার দাঁতের হলুদ টার্টার গুলোকে ঘষতে থাকুন। এই ডেন্টাল পিক যদি আপনি সাবধানতার সঙ্গে ব্যবহার না করেন তাহলে আপনার মাটির ক্ষতি হতে পারে। তাই মাড়ির ক্ষতি এড়াতে ডেন্টাল পিক ব্যবহার করার সময় সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে।
  • এরপরে অ্যান্টিসেপটিক মাউথ ওয়াশ এর মাধ্যমে ভালোভাবে কুলকুচি করে ফেলুন।

দাঁত ফাকা দূর করার ঘরোয়া উপায়

দাঁত ফাকা দূর করার জন্য যেসব ঘরোয়া উপায় মেনে চলবেন চলুন সেগুলো জেনে নেওয়া যাক।
  • দাঁত ফাকা দূর করার জন্য খাবার পরে সব সময় চেষ্টা করবেন ক্ষার জাতীয় পেস্ট দিয়ে দাঁত ব্রাশ করার। কারণ ক্ষার জাতীয় বেষ্টে থাকা এসিডের মাধ্যমে দাঁতের ফাঁকা জায়গাগুলো বন্ধ হয়ে যায়।
  • আপনি যদি দাঁত ফাঁকা দূর করতে চান তাহলে প্রতিদিন খাবার পরে ডেন্টাল ফ্লশ দিয়ে দাঁতে লেগে থাকা খাবারগুলো পরিষ্কার করে ফেলুন।
  • আপনার যদি দাঁতের মধ্যে ফাঁক দেখা যায় তাহলে প্রতিদিন ঘুমানোর আগে প্লাস্টিকের রাবার দিয়ে দুই দাঁতের সাথে সংযুক্ত করে প্রতিদিন বেঁধে রাখুন। তাহলে খুব সহজেই আপনি আপনার দাঁত ফাঁকা দূর করে ফেলতে পারবেন।

শেষের কিছু কথা

সম্মানিত পাঠাকবৃন্দ আপনি নিশ্চয়ই সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়েছেন এবং খুবই ভালো ভাবে বুঝতে পেরেছেন যে কিভাবে আপনি আপনার দাঁতকে সাদা করতে পারবেন। আপনি যদি সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়েন তাহলে আশা করা যায় যে আপনি আপনার হলদে রংয়ের দাঁতগুলোকে সাদা করে ফেলতে পারবেন। 

আজকের আর্টিকেলটি পরে যদি আপনার কাছে ভালো লাগে তাহলে সেটি অন্যদের কাছে শেয়ার করুন এবং এরকম নতুন নতুন আর্টিকেল এবং গুরুত্বপূর্ণ টিপস জানার জন্য প্রতিনিয়ত আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করতে থাকুন। এতক্ষণ আমাদের সাথে থাকার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url